Bdnews Live24 | logo

২৫শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রীর দাবি ইমরানকে হত্যার ষড়যন্ত্র চলছে

প্রকাশিত : এপ্রিল ০২, ২০২২, ০৩:০২

পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রীর দাবি  ইমরানকে হত্যার ষড়যন্ত্র চলছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী গতকাল শুক্রবার দাবি করেছেন, প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে হত্যার ষড়যন্ত্র চলছে, এমনই তথ্য দিয়েছে দেশটির নিরাপত্তা সংস্থাগুলো।

প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবের ওপর ভোট হবে আগামীকাল রবিবার। তার আগে তথ্যমন্ত্রী এই দাবি করলেন।

ফাওয়াদ চৌধুরীর উদ্ধৃতি দিয়ে পাকিস্তানের প্রভাবশালী ইংরেজি দৈনিক ডন জানিয়েছে, নিরাপত্তা সংস্থা প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার চক্রান্তের বিষয়ে খবর দেওয়ার পর সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ইমরান খানের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

 

চলতি সপ্তাহের প্রথম দিকে ইমরানের দল তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) নেতা ফয়সাল ভাবদা একই দাবি করে বলেছিলেন, ‘দেশ বিক্রি করতে অস্বীকার করার কারণে তাঁকে (ইমরান খান) হত্যার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। ’ এআরআই নিউজের ‘অফ দ্য রেকর্ড’ অনুষ্ঠানে এক প্রশ্নের জবাবে ভাবদা এই দাবি করেন।

গত রবিবার ইসলামাবাদে পিটিআইয়ের এক বিশাল জনসভায় ইমরান তাঁর সরকারকে উত্খাতে ‘বিদেশি ষড়যন্ত্র’ চলছে বলে অভিযোগ করে সমর্থকদের একটি চিঠি দেখিয়েছিলেন। ওই চিঠিকে তাঁর দাবির সপক্ষে ‘প্রমাণ’ অভিহিত করেন তিনি। চিঠিটির বিষয়ে ফয়সাল ভাবদার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর জীবন হুমকির মুখে। ’ তবে ওই চিঠিতে হত্যার ষড়যন্ত্রের বিষয়টি উল্লেখ রয়েছে কি না তা পরিষ্কার করেননি ভাবদা।

ভাবদা বলেন, রবিবারের সমাবেশে ইমরানের মঞ্চের সামনে বুলেটপ্রুফ কাচ লাগানোর জন্য কয়েকবার বলা হয়েছিল। কিন্তু এর উত্তরে ইমরান বলেছিলেন, ‘আমার মৃত্যু হবে আল্লাহর ইচ্ছায়, এটা নিয়ে চিন্তা করবেন না। ’

গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে প্রায় এক ঘণ্টা ধরে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। পার্লামেন্টে অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে ভোটের আগে দেওয়া ওই ভাষণে ইমরান তাঁর সরকারের বিরুদ্ধে বিরোধী নেতা এবং তাঁদের ‘কুচক্রী মনিবদের’ করা ‘আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র’ রুখে দেওয়ার অঙ্গীকার করেন। দৃশ্যত মুখ ফসকেই তিনি ‘হুমকি দেওয়া চিঠির’ পেছনে থাকা দেশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের নাম উল্লেখ করেন। তবে দ্রুত ইমরান তাঁর বক্তব্য সংশোধন করে বলেন, ‘আমেরিকা নয়, ষড়যন্ত্রের পেছনে অন্য কয়েকটি দেশ রয়েছে। ’

চিঠিটি দেখার সুযোগ পাওয়া একজন জ্যেষ্ঠ সাংবাদিকও তাত্ক্ষণিকভাবে বলেছিলেন, তাঁর মনে হয়েছে কথিত হুমকিদাতা দেশটি যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর একে ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের পর প্রতিক্রিয়ায় বিরোধী দলের নেতারা ইমরান খানকে পাকিস্তানের জন্য ‘নিরাপত্তা হুমকি’ হিসেবে অভিহিত করেন।

গত বুধবার তড়িঘড়ি করে ডাকা মন্ত্রিসভার এক বৈঠকে ইমরান ওই চিঠিটি সবাইকে দেখিয়েছেন বলে জানা গেছে। ইমরান খান পরে একদল টিভি সঞ্চালককেও ডেকে ‘চিঠির ভাষা হুমকিদায়ক ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ’ বলে জানান। তবে গণমাধ্যমকে চিঠিটি দেখাননি। অনাস্থা প্রস্তাবের মাধ্যমে ইমরান সরকারকে উত্খাতে ব্যর্থ হলে পাকিস্তানকে ‘কঠোর পরিণতি ভোগ করতে হবে’—এমন হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বিরোধীদের উত্থাপিত অনাস্থা প্রস্তাবে সমর্থন দিয়েছে এমকিউএম-পি। এই সমর্থনের পর ইমরান খান যে পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারাতে যাচ্ছেন, তা স্পষ্ট বলে মনে করেন পর্যবেক্ষকরা। পিটিআই সরকারের গুরুত্বপূর্ণ শরিক এমকিউএম-পির সাতটি আসন আছে পার্লামেন্টে। এগুলো বিরোধীদের সঙ্গে যুক্ত হলে ৩৪২ আসনের পার্লামেন্টে তাদের পক্ষে ১৭৭ ভোট হয়ে যায়। পদ টেকাতে হলে ইমরানের ন্যূনতম ১৭২ জন সদস্যের সমর্থন লাগবে।

এদিকে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী উসমান বুজদারের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন প্রদেশটির গভর্নর চৌধুরী মোহাম্মদ সারওয়ার। একই সঙ্গে নতুন মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচনের জন্য আজ শনিবার পাঞ্জাবের অ্যাসেম্বলির অধিবেশন ডেকেছেন গভর্নর।

স্থানীয় নির্বাচনে পিটিআইয়ের সাফল্য : অনাস্থা ভোট নিয়ে চাপে থাকা পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান গতকাল বলেছেন, খাইবার পাখতুনখাওয়া (কেপি) প্রদেশ ‘বিশ্বাসঘাতকদের’ প্রত্যাখ্যান করেছে। ইমরানের দল পিটিআই স্থানীয় সরকার নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে এগিয়ে থাকায় এ মন্তব্য করেন তিনি।

ইমরানের পক্ষে এগিয়ে এসেছেন জনপ্রিয় তারকারা

একের পর এক জনপ্রিয় তারকা ইমরানের পক্ষ নিয়ে কথা বলতে শুরু করেছেন। গত ৮ মার্চ বিরোধীরা প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনার পর তাঁর প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করে আসছেন দেশটির অনেক জনপ্রিয় তারকা। সম্প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন অভিনয়শিল্পী সিরা ইউসুফ, মায়া আলী, আলী কাজমি ও শাহরোজ সাবজাওয়ারি। তারকাদের অনেকেই ইনস্টাগ্রাম ও টুইটারে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করছেন।

স্বাবলম্বী না হলে তাঁর কোনো দাম নেই

ইমরান খান সরাসরি যুক্তরাষ্ট্রের নাম উল্লেখ না করে বলেছেন, একটি ‘শক্তিশালী দেশ’ ভারতকে কিছু না বললেও তাঁর রাশিয়া সফরের জন্য পাকিস্তানের প্রতি ক্ষুব্ধ। ইসলামাবাদ নিরাপত্তা সংলাপের বক্তৃতায় তিনি বলেন, ‘একটি স্বাধীন পররাষ্ট্রনীতি দেশের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, যা পাকিস্তান অর্জন করতে পারেনি। এর কারণ হলো—অন্য শক্তিশালী দেশগুলোর ওপর নির্ভরতা। স্বাধীন পররাষ্ট্রনীতি ছাড়া একটি রাষ্ট্র তার জনগণের স্বার্থ সুরক্ষিত করতে অক্ষম। ’ নিজের পায়ে দাঁড়াতে না পারলে তার কোনো সম্মান থাকে না বলে উল্লেখ করেন ইমরান খান। সূত্র : দ্য ডন



এ সংবাদটি 6927 বার পড়া হয়েছে.
শেয়ার করুন




bdnewslive24.com

অস্থায়ী অফিসঃ বন্ধন বি- এয়ারপোর্ট-রোড, আম্বরখানা সিলেট।

ই-মেইলঃ admin@bdnewslive24.com

নিউজঃ 01737-969088

বিজ্ঞাপনঃ 01892-475100

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বে-আইনি।

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সাহেদ আহমদ।

 

প্রধান উপদেষ্টাঃ কবির উদ্দিন।

সম্মানিত উপদেষ্টাবৃন্দঃ এডভোকেট নাসির উদ্দিন খাঁন, মোহাম্মদ বাদশা গাজী, মোঃ ইসলাম উদ্দিন।

 

বিডি নিউজ লাইভ ২৪ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।  © ২০২১

          Design & Developed BY: Cloud Service BD